হোয়াইক্যংয়ে মহতি কাজ করতে গিয়ে হামলার শিকার আওয়ামী লীগ নেতা, চমেকে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে

 ২০২০-০৩-২০ ২১:৪১:১৩   বিভাগ: টেকনাফ

নাফ বার্তা রিপোর্ট[]

টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের নয়াপাড়া জন চলাচলের সড়ক রক্ষা করতে গিয়ে উল্টো হামলার শিকার হলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ ইসমাইলন (৪০)। তিনি এই এলাকার আব্দুল মজিদের ছেলে। এমন মহতি কাজে হামলার শিকার হওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

২০ মার্চ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পুরুষ ওয়ার্ডের দায়িত্বরত চিকিৎসক জানিয়েছেন ওই রোগির অবস্থা আশঙ্কাজনক।
জানা গেছে, ১৯ মার্চ সকালে হোয়াইক্যং নয়াপাড়া স্টেশনের পশ্চিমে জনচলাচলের সড়কের একটি অংশে দখলের চেষ্টা চালায় রাস্তার এপার-ওপারের দুই পক্ষ। এ সময় উভয় পক্ষকে থামিয়ে শান্ত থাকার জন্য বলা হলে একটি পক্ষের স্থানীয় খলিল আহমদের ছেলে হেলাল উদ্দিন প্রকাশ কাস্য হেলালের নেতৃত্বে জালাল আহমদের ছেলে মো. জয়নাল ও শফিক গংরা দা, কিরিচ ও লাঠিসোটা দিয়ে হামলা চালিয়ে জখম ও রক্তাক্ত করা হয়। আহতের শোর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে তাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। অবস্থা বেগতিক হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। রোগির সাথে থাকা আওয়ামী লীগ নেতা জালাল উদ্দিন জানান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুনর রশিদ সিকদারের অনুরোধে ভিকটিমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। আহত মো. ইসমাইলের অবস্থা তেমন ভালো নয়। বর্তমানে তিনি চমেকের ২০ নং ওয়ার্ডের ৬ নং সীটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এদিকে হোয়াইক্যং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুনর রশিদ সিকদার ও সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হকের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ , যুবলীগ ও ছাত্রলীগ সহ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দুঃখ প্রকাশ করে এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান। সেই সাথে প্রশাসনের নিকট এই ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন তারা।
হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ এসআই মশিউর রহমান জানান, এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ বা সংবাদ দেয়া হয়নি। খতিয়ে দেখে এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।


আর্কাইভ
মার্চ ২০২০
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« ফেব্রুয়ারি   এপ্রিল »
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  

ফেইসবুকে আমরা